Breaking News

রাগ, কাম্য নয় – আল- আমীন হোসাইন

মার্ক টোয়েনের একটা কথা মনে পড়ছে; তিনি বলেছিলেন-

“রাগের সময় পারলে তোমার প্রিয় কোনো বইএর কয়েকটা পৃষ্ঠা ছিঁড়ে ফেলো।ছেঁড়ার পরপরই মনে হবে হায়,হায় আমি কি করলাম,কি করলাম।তখন রাগ হতাশার নিচে চাপা পড়ে যাবে। সেই সাথে আপনার রাগও কমে যাবে।”

 

সাইকোলজী বলে রাগী মেজাজী মানুষগুলো অনেকটা দৃঢ়চেতা স্বভাবের হয়ে থাকে।আবার এদের মন ভালো হয়।মানুষের অন্যান্য সকল অনুভূতির মত রাগও একটা গুরুত্ত্বপূর্ণ আবেগ।রাগের সময় যতটা সম্ভব নিজেকে শান্ত রাখা যেতে পারে।প্রিয়জন রাগ করলে আপাতত তাকে নিশ্চুপে স্যরি বলুন।মাথায় হাত বুলিয়ে দিন।কিছুটা সময় তাকে একটু গুরুত্ত্ব দিন।প্রশংসা করুন,ভালোবাসা উজাড় করে দিন তাকে।নিজ প্রিয়জনের মুখে প্রশংসা আর ভালোবাসা যেকোনো মানুষের রাগ কমিতে দিতে বাধ্য।

আবার, একবার দার্শনিক সাহেবকে একজন লোক খুব অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করল।কিন্তু ওনি প্রত্তুত্তরে টু শব্দও করলেন না।

কিছুক্ষন পর অন্য এক ভদ্রলোক এসে তাকে জিজ্ঞেস করল;”কি ব্যাপার,ওনি আপনাকে এতো বিশ্রী ভাষায় গালিগালাজ করল অথচ আপনি তাকে কিছুই বললেন না কেনো??”

 

এরিস্টটল জবাব দিলো; মনে কর আমি তোমাকে দুটো পয়সা দিলাম কিন্তু তুমি তা গ্রহণ করলে না,তাহলে পয়সা দুটো কার কাছে থাকবে?

 

আমিও সামলে নিয়েছি নিজেকে, তবে সাবধান থাকিস। আর হ্যাঁ,ভাল থাক।

Check Also

আমি বাইপোলার – সুমিতাংশু দোয়শী

আমি বাইপোলার – সুমিতাংশু দোয়শী আমি লিখি। যখন যেমন হয়, যা মনে হয় লিখে যায়। …

One comment

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।