Breaking News

শৈশব – রাজীব চৌধুরী

শৈশব
– রাজীব চৌধুরী

আমার শৈশব গুলো ছিল ঘোলাটে
তুখোড় বিকেলে রোদ মাড়িয়ে নিজের ঘরে ফিরে সব নতুন দেখতাম যেন । দুদিনেই স্মৃতির কাশবনে বিস্ময় এর পশু ঢুকে খেয়ে নিতো বসন্ত আত্মচিহ্ন । আর আমি নতুন করে নিজেকে খুজে নিতাম । সেই ছোট্ট বেলায় আমার তিনচাকার সাইকেল ছিলো স্টোর রুমে বন্দী । বাবা কিনে দিয়েছিলো । কিন্তু সাইকেলের সামনের চাকা টা ভেঙ্গে যেতেই যেন আমি নি:স্ব হয়ে গেলাম । বাবার নুন আনতে পানতস ফুরোত । একটা ডিম যখন চারজন ভাগ করে খেতাম তখন সাইকেলের সামনের চাকাটার কথা আমি ভুলে যেতাম । আমার চোখে তখন শুধু ডিম থাকতো । আমি ডিম খাওয়ার আনন্দ পেতাম বিয়ে বাড়িতে । ওখানে হাসি হাসি মুখ করে একখানা সাদা সেদ্ধ ডিমদিতো মস্ত ভাতের থালায় . . .আমি হা করে দেখতাম . . .
আর খেতাম । কিন্তু পুরো ডিম আমি কখনোই খেতে পারিনি জানো? কেন জানি ভয় হোত ।
সেই আমি পুরো একটা ডিম খেলাম এক বড়ুয়া বন্ধুর ঘরে । ওর বোনের বিয়েতে । আর আমি সেবার যেন প্রথম পুরো ডিম খাওয়ার সাহস করেছিলাম । সে থেকে শুরু ।
প্রথম রঙ্গিন টিভি দেখলাম সাহস করে ।
প্রথম স্কুল পালালাম শখ করে ।
কিন্তু আমি এখনো পেলাম না ।
আমার সেই ভ্রাম্যমাণ শৈশব কে আবার ফিরে পেতে ।
হায় সময় !
হায় শৈশব ।

Check Also

মুখেভাত – ঝিলিক মুখার্জী গোস্বামী

মুখেভাত – ঝিলিক মুখার্জী গোস্বামী ভেলভেটের কাপড়ে মোড়া লাল রঙের অ্যালবাম টা আজও একইরকম ভাবে …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।