সেপ্টেম্বর 2014

শারদ উৎসব
- মিলন বেরা

বর্ষা শেষের নীল আকাশ
ভরসা জাগায় মনে
আনন্দে সবাই যায় বেড়াতে
শিউলী তলার বনে
নদীর পাশে কাশের ঘাসে
ডিগবাজি খায় হাওয়া
রাগ অভিমান ঝগড়া ঝাটি ভুলিয়ে
হোক হাত মিলিয়ে নেওয়া
সবুজ ঘাসে শিশির হাঁসে
মাতে শহর গাঁ
নীল আকাশে স্বপ্ন ভাসে
আসছে দূর্গা মা ।

একটি গোলাপ
- দীপন দাস

বাগান জুড়ে ফুল ফুটেছে
নানান রঙের পাপড়ি খুলে ।
পুতুল পুতুল ছোট্ট খোকা
হাত বাড়িয়ে নিচ্ছে তুলে ।
স্বর্ণ চাঁপা, হলুদ গাঁদা
আরো কত কী আছে ।
রক্তগোলাপ, শ্বেতপদ্ম
খোকার মনে ভ্রমর নাচে ।
মায়ের জন্য একটি গোলাপ
হাসছে যেন ডালের ফাঁকে,
ফুলের মধ্যে মায়ের হাসি
খোকাকে রোজ এমনি ডাকে ।

আমি ভাবি
- প্রদীপ ঘড়া

ভাবনার শেষ দেখতে পাই না
কি এত ভাবনা
"কি এত ভাবনা, না মন বেদনা"
চঞ্চল মনকে ধরে রাখা যায় না
পাখির মতো ফুড়ুৎ ফুড়ুৎ ডানা মেলে ওড়ে
ফাল্গুনি মৃদু বাতাসে
পেমের ধূলি উড়ে চলে
আমি গবেষক । আমি কবি । আমি লেখক
কিংবা তোমার ছন্দছাড়া প্রেমিক
বাক্সবন্দি মনে আশা অনেক
ছন্নছাড়া অক্ষরগুলো
মেলেনা ছন্দে
তবুও কি সুখে আমি কবি
ছয় মৌসুমের কত সন্ধে
তোমার কথা ভেবে ।

ক্লান্ত ভিখারি
- প্রদীপ ঘড়া

পথ প্রান্তে চাহি আমি
অচিন দেশের পথিক তুমি ।
নাহি কি কুটির
পথ বাকি এখনো সুদূর
দীর্ঘ ক্লান্তি শুকনো মুখে
পিপাসায় বুক ফাটে ।
নিঃষ্প্রাণ মরুভুমি
থাকি আমি
নয় কেউ তুমি !
পথ প্রান্তে চাহি আমি ।।
দুয়ারে দুয়ারে করিয়া ভিক্ষা
ঝুলি তাহার নাহি ভরি
আঁখি ভরি পানিতলে
ক্ষুধায় তৃষ্ণায় তবু পথ চলে ।।
দ্বি-প্রহর গিয়েছে ফুরাইয়া
কি লয়ে ফিরবে কুটীরে
বৃক্ষতলে বসি
ভাবি আপন মনে
পথ-প্রান্তে চাহি আমি
অচিন দেশের পথিক তুমি ।।


সম্পাদকীয়...
নব দিবাকর পত্রিকাটি একটি সাহিত্য চর্চার অনলাইন সামাজিক প্রচেষ্টা । বর্তমান যুগে ইন্টারনেটের জন্য আমাদের অনেক কঠিন কাজই সহজ সরল হয়ে গিয়েছে । শুধু মাত্র যোগাযোগই নয় আরও অনেক কিছুই আমাদের হাতের মুঠোয় এসে গিয়েছে । কর্মব্যস্ত জীবন । সংবাদ মাধ্যম বা ইন্টারনেটের সাহায্যে আমরা নানা ধরনের খবর কয়েক মিনিটেই জানতে পারছি । যাইহোক নতুন লেখক/লেখিকাদের মধ্যে নতুন লেখনি উৎসাহের জোয়ার আনাই হল নব দিবাকরের কয়েকটি উদ্দেশ্যর মধ্যে একটি । সময়ের অভাবেই হোক অথবা পাতার অভাবেই হোক নামি দামি লেখক/লেখিকাদের লেখার ভিড়ে কচি - কাঁচাদের লেখা অনেক সময়ই হারিয়ে যায় । নব দিবাকরের অনলাইন সংস্করণে ছোট বড় সমস্ত লেখক/লেখিকাদের লেখাই প্রকাশিত করা হবে । অনলাইন সংস্করণ হওয়ায় নব দিবাকর পত্রিকাটি সমস্ত দেশে বসেই দেখা যাবে । বেশির ভাগ সময়ই আমরা নতুন মুখ দেখলেই তাদেরকে এড়িয়ে চলার চেষ্টা করি । আর সেই জন্যই তরুন লেখক/লেখিকাদের লেখার ইচ্ছা কমে গিয়ে সময়ের সাথে হারিয়ে যাচ্ছে অনেকেই । আমরা তাদের খোঁজ খবর পর্যন্ত রাখছি না । নব দিবাকর সবাইকে নিয়ে এগিয়ে চলবে এটাই আমাদের চলার পথের পাথেও । আমাদের চলার পথ যতই দুর্গম হোক না কেন আমরা সেটা অতিক্রম করার চেষ্টা করবই । লেখক/লেখিকাদের কাছে আমার বিনীত নিবেদন যে আমাদের লেখা দিয়ে আমাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন । আর অবশ্বই আমাদের চলার পথকে মসৃন করে আমাদের উদ্দেশ্যকে সার্থক করে তুলুন । সম্পাদক - মিন্টু উপাধ্যায়

তোমারি ভালোবাসায়
- মিলন বেরা

তোমার কথা ভাবি যখন
আমি মনে মনে
চোখ খানা থাকে আমার
ঐ দুর গগনে
কতদিন এলো আর গেলো
আমার এই জীবনে
তবু তুমি দিলেনা ধরা
আমার এই মন প্রানে
তোমার কথা আমি বলেছি
সবারে বারে বারে
তাও তুমি এলেনা
আমার ঘরের দুয়ারে
তোমার কথা ভাবতে ভাবতে
যখন যাব চলে
চোখ খানা ভিজিওনা
তুমি চোখেরই জলে
রেখ আমায় শুধু তোমার
হৃদয়ের এক কোনে
ফিরে আসব আমি
আবার পুনর্জন্মে ।

ভূতের দেশ
- মৌমিতা মান্না

সবাই বলে ভূতের দেশ
কোথাও একটা আছে,
কেউ জানে না কোথায় সেটা
দূরে কিংবা কাছে ।
কেউ বা বলে দিনের শেষে
সূর্য যখন পাটে,
হাজার ভূতের মেলা বসে
তেঁতুলতলার মাঠে ।
অমাবস্যার গভীর রাতে
একলা কাউকে পেয়ে,
শাকচুন্নি, ভূত - পেত্নি,
ডাইনি আসে ধেয়ে ।
কেউ বা বলে, আরে না-না-
থাকে না পথে - মাঠে,
ভূতরা ছোটে মড়ার খোঁজে
কবর, শ্নশান ঘাটে ।
ভূত দেখেনি স্বচক্ষে কেউ
তবু ভূতের নামে
আঁধার রাতে ছেলে - বুড়ো
সবাই ভয়ে ঘামে ।

Social

{facebook#https://facebook.com}

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget